মৌরি চা মুখের দুর্গন্ধ দূর করে, হজমের জন্য ভালো এবং প্রস্রাবের সমস্যা দূর করে।

চা মানেই সতেজতা। সেটা হোক লাল চা, আদা চা, গ্রীন টি বা লবঙ্গ চা যাই হোক কেন এক কাপ গরম গরম চা শরীরটাকে পুরো চাঙ্গা করে তুলবে। আর সেই চা যদি সুগন্ধে ভরা তাহলে তো সোনায় সোহাগা।

মৌরি, সুমিষ্ট ঘ্রান ও দারুন স্বাদের একটি মসলা। এর সুমিষ্ট ঘ্রান ও স্বাদের কারণে পরিচিতিও অনেক। মৌরি গাছ বহু শতাব্দী ধরে ঔষধি গাছ হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। মৌরি বীজ শুকিয়ে তারপর গুড়ি করে নিয়ে চা তৈরি করে খেতে পারেন।

মৌরিতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল প্রভাব রয়েছে। এছাড়া ম্যাগনেসিয়াম, ফাইবার (খাদ্য আঁশ) পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন রয়েছে। মৌরিতে ক্যালোরির পরিমাণ খুব কম। তবে অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান রয়েছে। এক কাপ পানিতে পরিমাণ মতো মৌরি দিয়ে ভালো করে জ্বাল দিয়ে ছেকে কাপে ঢেলে পরিবেশন করুন মৌরি চা।

গর্ভাবস্থায় মৌরি কি নিরাপদ?

গর্ভবতী মহিলাদের মৌরি চা, মৌরি তেল এবং মৌরি পরিপূরক এড়ানো উচিত এস্ট্রোজেনিক (estrogenic) প্রভাবের কারণে।

মৌরি চায়ের স্বাস্থ্য উপকারিতা

মৌরি চা পানের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করা হলো –

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে:

মৌরি চাতে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল এজেন্ট রয়েছে যা, সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে। এছাড়া মৌরি চা পান করলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাই।

বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের জন্য ভালো:

মৌরি চা গ্যালাক্টোজেনিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে, এর অর্থ এটি বুকের দুধ বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। মৌরি প্রোল্যাকটিনের মাত্রা বাড়িয়ে তুলতে পারে – এটি এমন একটি হরমোন যা শরীরকে বুকের দুধ তৈরি করতে সংকেত দেয়। এজন্য বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের জন্য মৌরি চা কার্যকরী।

হজমের জন্য ভালো:

গ্যাস্ট্রিক বা ডায়রিয়ার সমস্যায় মৌরি চা খুবই কার্যকরী। মৌরি চা হজমজনিত সমস্যাগুলি দূর করে হজম শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। তাই যাদের হজমজনিত সমস্যা আছে তারা মৌরি চা খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন।

ক্যান্সারে বিরুদ্ধে লড়াই করে:

মৌরিতে থাকা শক্তিশালী উদ্ভিদ যৌগ নির্দিষ্ট ক্যান্সারসহ দীর্ঘস্থায়ী রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে। অ্যানিথল – মৌরি বীজের অন্যতম প্রধান সক্রিয় যৌগ। যার মধ্যে ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করার মতো বৈশিষ্ট্য রয়েছে। একটি টেস্ট-টিউব সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, মৌরি স্তন ক্যান্সারের কোষের বৃদ্ধি কমাতে পারে। এছাড়া কিডনি এবং লিভার সুস্থ্য রেখে বার্ধক্যজনিত লক্ষণগুলি হ্রাস করে।

মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে:

অনেকেরই এ সমস্যা আছে। তাদের জন্য মৌরি চা খুবই কার্যকর। মৌরি মাউথ ফ্রেশনার হিসেবে কাজ করে। নিয়মিত মৌরি চা খেলে আপনার নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হবে। এছাড়া আস্ত মৌরি খেতে পারেন। এতে করে মুখের দুর্গন্ধ অনেকটা দূর হয়ে যাবে।

কোষ্ঠকাঠিন্যতা দূর হয়:

মৌরি চা হজম পেশীগুলি শিথিল করে কোষ্ঠকাঠিন্যতা দূর করতে পারে। পেটের সমস্যা ও কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধে করতে মৌরি চা খুব কার্যকর। তাই যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা আছে তারা মৌরি চা খেতে পারেন।

প্রস্রাবের সমস্যা দূর করে:

মৌরি চা নিয়মিত খেলে শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর হয়ে যায় এবং প্রস্রাবের সমস্যা দূর হয়। এটি মূত্রবর্ধক হিসেবে কাজ করে।

সতর্কতা:

আপনি যদি জটিল কোনো রোগে আক্রান্ত হন বা অন্য কোনো কারণে রেগুলার কোনো মেডিকেল কোর্স-এর মধ্য দিয়ে যান তাহলে অবশ্যই খাওয়ার আগে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নিবেন।

রেফারেন্স:

Share