টিকা নেওয়ার আগে ও পরে করণীয়।

টিকা দেওয়া স্থানে কিছুটা ব্যথা, বমি বমি ভাব, জ্বর বা রাতে কাঁপুনি, শরীর ব্যথা ছাড়া তেমন বড় কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় না। যেকোনো টিকা নিলেই এসব পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়ে থাকে।

মারাত্মক কোনো অ্যালার্জি না থাকলে এবং বড় ধরনের কোনো জটিলতা না থাকলে টিকা নেওয়ায় ভয়ের কিছু নেই।

টিকা নেওয়ার আগে আমাদের করণীয় সম্পর্কে:

চলুন জেনে নেওয়া যাক, টিকা নেওয়ার আগে আমাদের করণীয় কি:

টিকা নেওয়ার আগে চিকিত্‍সকের থেকে জানতে হবে টিকা শরীরে কী ভাবে কাজ করে।
কোনো খাবারে অ্যালার্জি থাকলে সে ধরনের খাবার টিকা নেওয়ার আগে থেকেই পরিহার করতে হবে।
যাদের ডায়াবেটিস আছে, তাদের ডায়াবেটিসের খাদ্যতালিকা মেনে চলতে হবে। উচ্চ রক্তচাপ
ডায়াবেটিসের যে ওষুধগুলো আছে সেগুলো যেন বাদ না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, হাইপ্রেসারের রোগীদের ডাক্তারি পরামর্শ নিয়ে বেশ কিছু পরীক্ষা করে নিতে হবে।
টিকা নেওয়ার আগে হালকা খাবার ও বেশি করে পানি পান করতে হবে।
টিকাকেন্দ্রে টিকা দেওয়ার জন্য ঢিলেঢালা পোশাক পরে যেতে হবে, এতে করে টিকা নিতে সুবিধা হয়।
টিকা কেন্দ্রে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং অবশ্যই মাস্ক পড়তে হবে।
জ্বর থাকলে বা শারীরিক কোন সমস্যা থাকলে একদমই টিকা নেওয়া যাবে না।
টিকা নেওয়ার আগে কোন ধরণের নেশা জাতীয় দ্রব্য বা মাদক জাতীয় দ্রব্য গ্রহণ করা যাবে না।
টিকাকেন্দ্রে যাওয়ার সময় সঙ্গে কাউকে নিয়ে যেতে পারেন। কোনো স্বজন পাশে থাকলে মনে সাহস বাড়বে।

টিকা নেওয়ার পরে আমাদের করণীয় সম্পর্কে:

চলুন জেনে নেওয়া যাক, টিকা নেওয়ার পরে আমাদের করণীয় কি :

টিকা নেওয়ার পর জ্বর বা ব্যথা হলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ সেবন করুন।
টিকা নেওয়ার পর হাত ফুলে থাকলে চিকিত্‍সকের সাথে যোগাযোগ করুন।
মি দেখা দিলে অমিডন জাতীয় ওষুধ খেতে পারেন।
টিকা নেওয়ার পর মহুর্তে কোন ধরণের নেশা জাতীয় দ্রব্য বা মাদক জাতীয় দ্রব্য গ্রহণ করা যাবে না।
বেশি করে পানি পান করুন। ফলের রস ও সুষম খাবার খান, রাতের ঘুম যেন পর্যাপ্ত হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন।
টিকা গ্রহণের পর ২৪ ঘণ্টা সময় পর্যন্ত বাসায় বিশ্রামে থাকুন। ঐদিন কোনভাবে গাড়ি চালানো যাবে না।
টিকা দিলে বেশি জ্বর, ডায়রিয়া বা রাতে কাঁপুনি হতে পারে, সে জন্য জরুরি কিছু ওষুধ বাসায় রাখতে হবে। শারীরিক কোনো সমস্যা বোধ করলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
Share