শিশুর অতিরিক্ত চঞ্চলতা বা মনোযোগের ঘাটতি নিয়ে চিন্তিত? কেন হয় ও পরিত্রানের উপায় জেনে নিন।

আমার বাচ্চা চঞ্চল। আপনার বাচ্চাও চঞ্চল। শিশুরাতো স্বাভাবিকভাবে চঞ্চল। এটা শিশুদের স্বাভাবিক বৈশিস্ট্য। বাচ্চারা একেবারে চুপচাপ থাকলেও ভালো লাগে না। চঞ্চল হলে খুব বেশি সমস্যা নেই কিন্তু অতিরিক্ত চঞ্চল হলে বা সেটা দীর্ঘদিন স্থায়ী হলে সমস্যা মানে Hyper Activity Disorder বা Attention Deficit অর্থাৎ শিশুর অতিরিক্ত চঞ্চলতা বা অমনোযোগিতা।

অনেক বাবা মাই মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে গিয়ে হাজির হন। আমাকে উদ্ধার করেন। বাচ্চা এতো চঞ্চল আমি আর পারছি না। এখন প্রশ্ন হলো চঞ্চল হলেই কি মানসিক এই রোগের আওতায় আসবে বা কিভাবে বুঝবো?

কোনো বাচ্চার অতিরিক্ত চঞ্চলতার কারণে যদি তার দৈনন্দিন কাজকর্ম প্রভাবিত হয়। চঞ্চলতার কারণে তার স্কুল, পড়াশোনা  ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। খেলার মাঠে বন্ধুবান্ধবদের সাথে সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। পরিবার, আত্নীয়-স্বজন সর্বক্ষেত্রে টানা ৬ মাস বা তারও বেশি খারাপ প্রভাব ফেলছে তাহলে বুঝতে হবে শিশুটি Hyper Activity Disorder নামক মানসিক সমস্যায় ভুগছে।

শিশুর Attention Deficit মনোযোগ ঘাটতি বা Hyper activity disorder অতিরিক্ত চঞ্চলতা খুবই সাধারণ একটি সমস্যা। হাইপারএকটিভিটি ডিসঅর্ডার (এডিএইচডি) হল একটি মস্তিষ্কের ব্যাধি যা আপনার শিশুকে অমনোযোগী করে তুলবে এবং সর্বক্ষেত্রে তাকে নিচে নামিয়ে দেবে। এটি শিশু এবং কৈশোরে ঘটে এবং যৌবনেও থেকে যেতে পারে।

বাচ্চাদের মধ্যে এডিএইচডি হল সর্বাধিক নির্ধারিত মানসিক ব্যাধি। মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের এটি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এটি সাধারণত প্রারম্ভিক স্কুল বছরগুলিতে প্রদর্শিত হয়, যখন কোনও সন্তানের মনোযোগ দিতে সমস্যা হতে শুরু করে।

তবে তাড়াতাড়ি চিহ্নিত করা, আরও ভাল চিকিত্সা এবং শিক্ষার পরিকল্পনা থাকার ফলে এডিএইচডি আক্রান্ত শিশু বা প্রাপ্তবয়স্কদের তাদের লক্ষণগুলি পরিচালনা করতে সহায়তা করতে পারে।

উচ্চতা, বয়স, ওজন ইত্যাদির উপরে রোগের মাত্রা নির্ভর করে।

কেন হয়?

১. জেনেটিক্স

২. হরমোন তারতম্য

৩. পরিবেশগত

বাবা মায়ের করণীয়:

মারধর করবেন না।

কারো সাথে তুলনা করার দরকার নেই

বোঝার চেষ্টা করেন

বাবা মায়ের অনেক কিছু করণীয় রয়েছে। অধয্য হলে হবে না। চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধও খাওয়াতে পারবেন। মেয়েদের থেকে ছেলেদের এই মানসিক সমস্যা বেশি দেখা যায়।

 

 

 

Share