যে খাবারগুলো পুনরায় গরম করে খাওয়া স্বাস্থ্যকর নয়।

আমরা সাধারণত বাড়িতে রান্না করার পর সময় বাঁচানোর জন্য সেই খাবার আবার পরের দিনের জন্য রেখে দিই। পরের দিন আবার সেই খাবার পুনরায় গরম করে খাই।

কিছু কিছু খাবার আছে যেগুলো পুনরায় গরম করে খাওয়া ক্ষতিকর, এতে আমাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি অনেক গুন বেড়ে যায়।

এরকম কয়েকটি খাবার সম্পর্কে আজ জানব যেগুলো পুনরায় গরম করে খাবেন না। কারণ এগুলো দ্বিতীয়বার গরম করলে বিষাক্ত হয়ে উঠতে পারে।

ভাত :

ভাত রান্নার পর যদি দীর্ঘ সময় সাধারণ তাপমাত্রায় রাখা হয় তাহলে ‘ব্যাসিলাস সিরিয়াস’ নামক এক প্রকার ব্যাক্টেরিয়া তৈরি হতে থাকে। রেখে দেওয়া ভাত পুনরায় গরম করা হলেও ব্যাক্টেরিয়া নষ্ট হয় না।

এই ভাত খেলে ডায়রিয়া এবং বমি হওয়ার সমস্যা হতে পারে। তাই ভাত রান্না করে রেখে না দিয়ে বরং যখন খাওয়ার সময় হবে তার কিছুক্ষণ আগে রান্না করে নেয়াই ভালো।

মুরগির মাংস :

আমরা অনেকেই সময় বাঁচানোর জন্য একবারেই অনেক মুরগির মাংস রান্না করে রাখি। কিন্তু মুরগির মাংস বার বার গরম করে খাওয়া উচিৎ নয়। কারণ মুরগির মাংসে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। রান্নার পরে তা আবার গরম করলে প্রোটিনের কম্পোজিশন বদলে গিয়ে তা থেকে বদহজম হতে পারে।

ডিম :

ডিম হচ্ছে এমন একটি খাবার যা উচ্চ তাপের সংস্পর্শে বিষাক্ত হয়ে যায়। ডিমের মধ্যেও বেশি পরিমাণে প্রোটিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্টস থাকে। রান্নার পরে আবার তা গরম করলে ডিম থেকে টক্সিন তৈরি হয় যা থেকে বদহজমের আশঙ্কা তৈরি হয়।

আলু :

আলু রান্না বা সেদ্ধ করার পরে ঠাণ্ডা হওয়ার সময় তাতে বটুলিজম নামে একটি ব্যাক্টেরিয়া তৈরি হয়। পরে আবার তা গরম করলে এই ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যাগুলি বেড়ে গিয়ে ফুড পয়জনিং হতে পারে।

পালংশাক :

পালংশাকও পুনরায় গরম করা বিপদজনক। উচ্চ মাত্রার নাইট্রেট সমৃদ্ধ পালংশাক রান্নার পর পুনরায় যখন গরম করা হয় তখন তা পুরোপুরি নাইট্রেটে পরিনত হয়। যা খেলে দেহে ক্যান্সার সৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলে।

মাশরুম :

মাশরুম দিয়ে কিছু রান্না করলে সঙ্গে সঙ্গেই খেয়ে ফেলা ভালো, নইলে পরে আবারও গরম করে খেলে এর প্রোটিনের কার্যকারিতা কমে যায়। যার ফলে হজমের সমস্যা সৃষ্টি হয়।

বিট :

এই সবজিটিতেও পালংশাকের মতো নাইট্রেট রয়েছে, যা পুনরায় গরম করা অত্যন্ত বিপদজনক। পুনরায় গরম করে খাওয়া হলে নানাবিধ সমস্যা দেখা দেয়।

পোড়া তেল বা ব্যবহৃত তেল :

আমরা অনেকেই খাবার রান্নার পর অবশিষ্ট তেল রেখে দেই পরবর্তী কোন খাবার রান্নার জন্য। কিন্তু আমরা কি জানি এটা আমাদের শরীরের জন্য কতটা ক্ষতিকর। পোড়া তেল ফের গরম করে রান্নায় ব্যবহার করলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ববনা বাড়ে।

রেফারেন্স:

Share