স্বাস্থ্যকর অফিস স্ন্যাকস কোনগুলো।

তিন বেলা খাবার খাওয়ার পাশাপাশি টুকটাক আমাদের কিছু না কিছু খেতেই হয়। বিশেষ করে অফিস টাইমে কাজ করতে করতে যখন ক্লান্তি চলে আসে তখন চা-কফির সঙ্গে কিছু অনুষঙ্গ খাবারও খেতে ইচ্ছে করে। তাই এই সময় চাই স্বাস্থ্যকর এবং শরীরে অনেকক্ষণ এনার্জি দিতে পারে এমন খাবার।

প্রতিদিন নিয়ম মেনে মাঝেমধ্যে যদি স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস খাওয়া যায় তাহলে পেট ও মন উভয়েরই তৃপ্তি হয়। এখানে কয়েকটি স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকসের নাম দেওয়া হল যা আপনি সহজেই বাড়িতে তৈরি করে অফিসে নিয়ে যেতে পারবেন। এগুলি পুষ্টিকর এবং এতে ক্যালোরির পরিমাণও কম।

ফলে এই স্ন্যাকসগুলি আপনার ওজন ঠিক রাখার পাশাপাশি আপনাকে এনার্জি দেবে ও কর্মঠ রাখবে। কিছু ফল দিয়ে তৈরি করা যায় স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস। বাদাম এবং বীজ দিয়ে তৈরি স্ন্যাকস প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ। ঘিয়ে ভাজা মাখানা দিয়ে দারুণ স্ন্যাকস তৈরি হয়। আপনার ডায়েটের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ স্ন্যাকস।

আসুন এবার জেনে নেওয়া যাক, স্বাস্থ্যকর অফিস স্ন্যাকস কোনগুলো-

মাখানা:

মাখানা একধরণের বাদাম এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন এবং স্বাস্থ্যসম্মত কার্বোহাইড্রেট রয়েছে। এগুলোতে ক্যালোরি কম থাকে এবং এটির এন্টি-এজিং ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য আছে। মাখানা ঘি দিয়ে ভেজে একটি কাচের জারে ভর্তি করে রাখুন। প্রতিদিন এই ঘিয়ে ভাজা প্রোটিন সমৃদ্ধ ও সুস্বাদু মাখানা একটি ছোট বাক্সে করে নিয়ে যেতে পারেন অফিসেও।

ছোলা ভাজা:

ভাজা ছোলা অন্যতম স্বাস্থ্যকর খাবার। ছোলা পরিমাণ মতো অল্প আঁচে ভাজুন। তারপর এয়ারটাইট কাচের জারে এগুলো ভরে রেখে দিন। পরের দিন অফিসে স্ন্যাকস হিসাবে নিয়ে যেতে পারেন এই ছোলা ভাজা।

এগুলোতে ফ্যাট, ফাইবার এবং প্রোটিন বেশি থাকে। যা চটপট আপনার শরীরকে প্রয়োজনীয় উপাদান সরবরাহ করতে পারে এবং কাজের মধ্যে অল্প ক্ষুধা পেলে চট করে তা মেটাতেও পারে।

বিভিন্ন বাদাম ও বীজের মিশ্রণ:

এটা এমন একটা স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস যার জন্য কোনো রান্না এবং পূর্ব প্রস্তুতির প্রয়োজন নেই। একসঙ্গে বিভিন্ন রকমের বাদাম যেমন – কাজুবাদাম, আলমন্ড এবং বীজ কিনে রাখুন এবং বাদাম ও বীজের একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। বাদাম এবং বীজ হলো প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার যা দীর্ঘ সময়ের জন্য আপনার পেট ভর্তি রাখে।

ফল:

কাজের ফাঁকে খান মৌসুমি ফল। আপেল এবং কলা জাতীয় ফলগুলো স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর। চটজলদি অফিসে খেয়েও নিতে পারবেন। তবে আপনি যে ফলটি বেছে নিচ্ছেন তা মৌসুমি ফল হলেই ভাল হয়। টাটকা ফল স্বাস্থ্যকর ও সুষম ডায়েটের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। ফল আপনাকে স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখতে সহায়তা করবে।

চালভাজা:

আপনি মোটা চাল ভেজে নিতে পারেন। চাইলে ওই মিশ্রণে একটু কালো ছোলাও দিতে পারেন। এগুলোকে মাঝারি আঁচে ততক্ষণ পর্যন্ত ভাজুন যাতে এগুলি কুঁচকে গিয়ে কুড়মুড়ে হয়ে যায়। তারপর এগুলোকে কাচের জারে সংরক্ষণ করে রাখুন। প্রয়োজন মতো অফিসে টিফিন হিসাবে নিয়ে যান।

এই পাঁচটি স্ন্যাকস অফিসে কাজের ব্যস্ততার মধ্যে আপনার খিদে মেটাতে পারে। এগুলো প্রোটিন সমৃদ্ধ এবং দিনের বাকি সময়টা আপনাকে তরতাজা থাকতে সাহায্য করে।

Share