রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যে দুর্বল তা কিভাবে বুঝবেন?

আমাদের বেঁচে থাকার জন্য আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা জরুরি। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা না থাকলে আমাদের শরীর ব্যাকটিরিয়া, ভাইরাস, পরজীবী এবং আরও অনেক কিছু দ্বারা আক্রমণের জন্য উন্মুক্ত থাকতো। আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এইসকল জীবাণুগুলি থেকে রক্ষা করে আমাদেরকে সুস্থ্য রাখে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সাথে অনেক ধরণের কোষ, অঙ্গ, প্রোটিন এবং টিস্যু জড়িত। এটি আমাদের শরীরের টিস্যুকে বাইরের টিস্যু থেকে আলাদা করতে পারে। মৃত এবং খারাপ কোষগুলি বের করে শরীর থেকে মুক্ত করে দেয় আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যতই স্মার্ট হোক না কেন এটি নিখুঁত নয়। কখনও কখনও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিকভাবে কাজ করতে পারে না এবং আমরা অসুস্থ্য হয়ে পড়ি। অসুস্থ্য হলে ডাক্তারের পরামর্শে বা অন্য উপায়ে চেষ্টা করা হয় কিভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করা যায় বা সুস্থ্য হওয়া যায়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যে দুর্বল তার অনেক লক্ষণ আছে। নিচে দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কয়েকটি উল্লেখযোগ্য লক্ষণ নিয়ে আলোচনা করা হলো-

ডায়রিয়া:

২ থেকে ৪ সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ডায়রিয়া থাকলে এটি একটি সতর্কতা বার্তা যে আপনার প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল। অতিরিক্ত কোষ্ঠকাঠিন্যও উদ্বেগের বিষয়।

অল্প জ্বর:

যদি শরীরে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি তাপমাত্রা থাকে তবে এটি হতে পারে যে আমাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা অতিরিক্ত কাজ করছে। এটি যেকোন সংক্রমণের কারণে ঘটতে পারে।

অকারণে খুব ক্লান্তি:

কোন কারণ ছাড়া খুব ক্লান্ত বোধ করার অর্থ আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সাথে কিছু একটা হচ্ছে। ঘুম কম এবং জয়েন্টগুলি বা পেশীগুলি ব্যথা করতে পারে।

হাড়ের জয়েন্টগুলোতে ব্যথা:

আমাদের হাড়ের জয়েন্টগুলির অভ্যন্তরের আস্তরণটি যখন স্ফীত হয়ে উঠে, তখন এর চারপাশের অঞ্চলটি ফোলা ও ব্যথা হতে পারে এবং একাধিক জয়েন্টের সাথে এটি ঘটতে পারে। দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য এটি হতে পারে।

অতিরিক্ত চুল পড়া:

কখনও কখনও দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য চুলের ফলিকগুলি দুর্বল হয়। আপনার মাথার ত্বক থেকে যদি অতিরিক্ত চুল পড়ে তবে আপনার অ্যালোপেসিয়া আরাটা নামে একটি অবস্থা হতে পারে যা দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার লক্ষণ।

সূর্যের প্রতি সংবেদনশীল:

অটোইমিউন ডিসঅর্ডারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মাঝে মাঝে ফোটোডার্মাটাইটিস নামে পরিচিত অতিবেগুনী (ইউভি) রশ্মির প্রতি অ্যালার্জি হয়। দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য রোদে থাকার পরে ফুসকুড়ি, ঠান্ডা লাগা, মাথা ব্যথা বা বমিভাব হতে পারে।

অস্বাভাবিক ওজন পরিবর্তন:

খাদ্যাভাস পরিবর্তন না হলেও দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য অস্বাভাবিক ওজন পরিবর্তন হতে পারে। অটোইমিউন রোগ থেকে আপনার থাইরয়েড গ্রন্থির ক্ষতি হওয়ার কারণে এটি সম্ভব।

হাত এবং পায়ে অসাড়তা:

দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য আমাদের শরীর স্নায়ুগুলিকে আক্রমণ করতে পারে যা পেশীগুলিতে সংকেত পাঠায়। উদাহরণস্বরূপ, যাদের গিলেন-ব্যারে সিন্ড্রোম রয়েছে তাদের পায়ের মধ্যে অসাড়তা থাকতে পারে। এজন্য হাত এবং পায়ে অসাড়তা দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার লক্ষণ।

Share