প্রাকৃতিক উপায়ে চুলে রং করতে চান? তাহলে জেনে নিন চুল রং করার প্রাকৃতিক উপায়গুলি সম্পর্কে।

চুল কালার করা বর্তমানে ফ্যাশনের একটি বড় অঙ্গ হয়ে উঠেছে। সাদা চুল ঢাকতে কিংবা ফ্যাশনের সাথে তাল মেলাতে চুল রং বা হাইলাইট করতে চান? তাহলে পার্লার কিংবা বাজারের ডাই দিয়ে চুল রং করার পরিবর্তে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে চুলে কালার করুন। কারণ এইসব কৃত্তিম হেয়ার কালার আপনার চুল করে তুলবে রুক্ষসুক্ষ।

এছাড়া চুল পড়ার ভয়ও থাকে। প্রাকৃতিক উপায়ে করতে পারেন হেয়ার কালার। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় হওয়ায় এটি চুলের কোনো ক্ষতি করবে না। বরং চুলে পুষ্টি জুগিয়ে চুল করে তুলবে প্রাণবন্ত। তাহলে আসুন জেনে নিন প্রাকৃতিক কোন উপকরণগুলি চুল কালার করতে ব্যবহার করবেন –

গাজরের রস:

আপনি যদি চুল লালচে কমলা রঙ করতে চান তবে গাজরের রস ব্যবহার করে দেখুন। নারকেল তেলের সাথে গাজরের রস মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি চুলে প্রয়োগ করুন। তারপর শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে এক ঘন্টা পর্যন্ত চুল ঢেকে রাখুন। এক ঘন্টা পর আপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

বীট রস:

প্রাকৃতিক চুল রঞ্জন হিসাবে বীটের রস খুবই কার্যকরী। চুলে লালচে রঙের ঝলক আনতে চাইলে ব্যবহার করতে পারেন বিটরুট। এক কাপ বিটরুটের রস ও এক কাপ গাজরের রস একটি স্প্রে বোতলে নিয়ে স্প্রে করুন চুলে। শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন ৩ ঘণ্টা। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

মেহেদি পাতা:

চুলে রঙের ছোঁয়া আনতে সবচেয়ে প্রচলিত ও জনপ্রিয় পদ্ধতি মেহেদি পাতা। চুলকে প্রাকৃতিক রং করতে তাজা মেহেদি পাতা পিষে অথবা মেহেদি পাতার ৫/৬ চামচ শুকনো গুড়োর সাথে চা-পাতার পানি অথবা কফির পানি মিশিয়ে দিলে চুলে সুন্দর গাঢ় লালচে রং হবে। মাসে ২/৩ বার ব্যবহারে রং দীর্ঘস্থায়ী হবে।

লেবুর রস:

লেবুর রসের সঙ্গে সামান্য পানি মিশিয়ে স্প্রে বোতলে করে চুলে লাগান। তারপর শাওয়ার ক্যাপ পরে ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। ১ ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন পানি দিয়ে। এটি চুলে সোনালি রঙের আভা নিয়ে আসবে। সর্বোত্তম ফলাফলের জন্য রোদে বসে থাকুন।

কফি:

সকালে কফির কাপ শুধু উষ্ণতাই ছড়ায় না, আপনার চুলকেও রাঙিয়ে তোলে। ফুটন্ত পানিতে কড়া করে কফি গুলে নিন। রংটা যত আপনার চুলের রঙের কাছাকাছি হয়, তত ভালো। কফি ঈষদুষ্ণ হয়ে এলে স্প্রে-বটলে ভরে সমস্ত চুল আর চুলের গোড়ায় স্প্রে করে ভালো করে মাসাজ করে নিন।

স্নান করতে যাওয়ার সময়ই সেটা করা ভালো, না হলে জামাকাপড়ে দাগ ধরে যেতে পারে। গোটা চুলে কফি স্প্রে করার পর শাওয়ার ক্যাপ পরে একঘণ্টা অপেক্ষা করুন, তারপর শ্যাম্পু করে নিন। সুন্দর বাদামি রং পাবেন চুলে।

<>লাল চা:

৫ টেবিল চামচ চা পাতা ১ কাপ পানিতে ফুটিয়ে নিন। লিকার ঠাণ্ডা হলে চুলে লাগান। ৩০ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কফির মতোই লাল চা দিয়েও প্রাকৃতিক উপায়ে চুল কালো করতে পারেন। খেয়াল রাখবেন, লাল চা যেন কড়া হয়।

  • 7 Natural Hair Dyes: How to Color Your Hair at Home
  • Share