গোল মরিচের উপকারীতা।

গোল মরিচের ঝাঁঝালো স্বাদ ও সুগন্ধ স্বাস্থ্যকর মসলার তালিকার শীর্ষে অবস্থান করে দিয়েছে। এই ছোট মসলাটি যেকোনো খাবারের স্বাদ বৃদ্ধি করে। গোলমরিচের আদিভূমি ভারতীয় উপমহাদেশ। ভারতীয় উপমহাদেশে অন্তর্ভুক্ত হলেও এটি অন্যান্য গ্রীষ্মমন্ডলীয় দেশেও জন্মে। প্রাচীনকাল থেকেই খাদ্যে মসলা হিসেবে এটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। গোল মরিচে পাইপারিন (piperine) নামের রাসায়নিক উপাদান রয়েছে, যা থেকে এর ঝাঁঝালো স্বাদটি এসেছে।

আমরা সবাই গোল মরিচ এই শব্দটির সাথে পরিচিত। এটি বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক ব্যবহৃত একটি মশলা। গোলমরিচকে বলা হয় মশলার রাজা। কারণ এটির মতো এতো বেশি গুনাগুণ নাকি আর কোন মশলায় নেই। এই গুনের কারণে গোল মরিচ হাজার বছর ধরে আয়ুর্বেদিক ঔষুধে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

গোল মরিচের উপকারীতা

গোল মরিচ ওজন কমাতে, হজম উন্নতি, ঠান্ডা এবং কাশি থেকে মুক্তি, ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি ব্যাহত করে ক্যান্সার প্রতিরোধ করার পাশাপাশি অনেক উপকারীতা রয়েছে। নিচে আলোচনা করা হলো –

  • গোল মরিচ(black pepper) কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দিতে পারে।
  • রক্তে শর্করার নিয়ন্ত্রণে উন্নতি করে গোল মরিচ।
  • গোল মরিচ কফ, কাশি ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা নিরাময় করে।
  • গোল মরিচ ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি ব্যাহত করে ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।
  • এটি হজমে সাহায্য করে। আর হজম ঠিক থাকলে কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়েরিয়ার মতো সমস্যা এড়ানো যায়। এছাড়া গ্যাসট্রিকের সমস্যাও দূর করে।
  • গোল মরিচ ওজন কমাতে সাহায্য করে।
  • কোমর বা পাঁজরের ব্যথা সারাতে গোল মরিচ গুড়ি করে গরম পানি সাথে মিশিয়ে সকাল ও বিকেল একবার করে খেলে ফল পাবেন।
  • দাঁতে ক্যাভিটি বা ব্যথা থাকলে, গোলমরিচ সেই ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়া মুখের ভেতরের দুর্গন্ধ দূর করতেও গোলমরিচ উপকারী।
  • গোলমরিচ গুঁড়া করে, স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করলে ত্বক থেকে মৃত কোষ দূর হয়।
Share