গর্ভাবস্থায় আতা বা সীতাফল। গর্ভবতী মায়েদের খুবই উপকারী আতা বা শরিফা।

আমরা অনেক পরিশ্রম করে নানা রকমের সুস্বাদু খাবার তৈরি করে খায়। কিন্তু সুস্বাদু, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও মিনারেলসে পূর্ণ ফল সৃষ্টিকর্তা এক এক রংয়ে, স্বাদে ও গন্ধে আমাদের জন্য একেবারে তৈরি করে পাঠিয়েছে।

বাংলায় আতা ইংরেজিতে Custard Apple বা সুগার আপেল, হিন্দিতে শরিফা, সংস্কৃতে সীতাফল খুবই পুষ্টিকর একটি ফল। সর্বশ্রেষ্ট খাবার এই ফল আমাদের শুধু খেলে চলবে না। আপনাকে জানতে হবে এই ফলটি গর্ভবতী মায়েদের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

একটিমাত্র ফুলের মুক্ত গর্ভাশয় হতে একগুচ্ছ ফল উৎপন্ন হয়। আমরা হয়তো অনেকেই জানি না অনেক দেশে দুগ্ধজাত দ্রব্যের বিকল্প হিসাবে আতাফল ব্যবহার করা হয়।

গর্ভাবস্থায় ফল এবং শাকসব্জি সবচেয়ে ভাল খাবার। কাস্টার্ড আপেল বা সীতাফল বা আতা তাদের মধ্যে অন্যতম। এই মৌসুমী ফলটি মা এবং অনাগত সন্তানের পক্ষে অত্যন্ত পুষ্টিকর। এটি ভিটামিন, প্রোটিন, ফাইবার, কার্বোহাইড্রেট এবং প্রয়োজনীয় মিনারেলস দিয়ে বোঝায়।

অনেক মায়েরা গর্ভাবস্থায় কাস্টার্ড আপেল বা আতা বেছে নেন। গর্ভাবস্থা প্রতিটি মহিলার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ journey বা সময়। সুতরাং, পুষ্টিও একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। একজন গর্ভবতী মা গর্ভাবস্থায় কী খাবেন সে সম্পর্কে সর্বোচ্ছ সতর্ক থাকতে হবে।

আতা বা কাস্টার্ড আপেল শিশুর বিকাশে সহায়তা করে। গর্ভবতী মা গর্ভাবস্থার প্রথম কয়েক মাসের মধ্যে আতা খেলে সকালের অসুস্থতা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। প্রশ্নটি হল কেন গর্ভবতী মহিলাদের কাস্টার্ড আপেল বা আতা খাওয়া উচিত? এটি ফলের উচ্চ পুষ্টিগুণের কারণে, যা গর্ভাবস্থায় অসংখ্য স্বাস্থ্য বেনিফিট সরবরাহ করে।

আতার আরেক ভারতীয় নাম, সীতাফল, সংস্কৃত শব্দ ‘শীতা’ থেকে এসেছেযার অর্থ ঠান্ডা’ এবং ফল যার অর্থ ফল এটি এমন একটি ফল যা শরীরকে শীতল করার জন্য পরিচিত। আপনি যদি ভাবছেন যে আপনি গর্ভাবস্থায় আতা খেতে পারবেন কিনাতবে পড়া চালিয়ে যান।

The Indian name for custard apple, sitaphal, has been derived from the Sanskrit words sheeta which means ‘cold’ and phal which means ‘fruit’. This is a fruit that is known to cool the body. If you’re wondering whether you can eat custard apples during pregnancy, keep reading.

আতার প্রতি ১০০ গ্রামে পুষ্টির মান নিম্নরূপ:

শক্তি ৩৯৩ কেজে (৯৪ ক্যাল)
শর্করা ২৩.৬৪ গ্রাম
ফ্যাট ০.২৯ গ্রাম
প্রোটিন ২.০৬ গ্রাম
ভিটামিন বি১ ০.১১ এমজি
ভিটামিন বি৬ ০.২ এমজি
ফোলেট ১৪ ইউজি
ক্যালসিয়াম ২৪ এমজি
ম্যাগনেসিয়াম ২১ এমজি
পটাশিয়াম ২৪৭ এমজি

এটি গর্ভাবস্থায় একটি কার্যকর ফল এবং বিভিন্ন স্বাস্থ্য বেনিফিট সরবরাহ করে। এটি ভিটামিন বি 6 এবং ভিটামিন এ এর মতো অন্যান্য ভিটামিনগুলিতেও সমৃদ্ধ এটির ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, তামা এবং আয়রনের মতো খনিজ রয়েছে।

গর্ভাবস্থায় আতা বা কাস্টার্ড অ্যাপল বা সীতা ফলের উপকারিতা বা স্বাস্থ্যসুবিধা:

সকালের অসুস্থতা হ্রাস করে:

আতাফল বা শরিফা গর্ভাবস্থায় সহায়ক ভূমিকা পালন করে এবং গর্ভপাতের ঝুঁকি হ্রাস করে। ভিটামিন বি 6 এর উপস্থিতি বমিভাব এবং সকালে অসুস্থতা হ্রাস করে। এটি আপনার সকাল আরও ভাল করে তুলবে।

স্তন দুগ্ধ বাড়ায়:

আতা ফল বা সীতাফল স্তনদুগ্ধ বাড়ানোর জন্য দুর্দান্ত। গ্যানোকোলোজিস্টদের মতে আতা খাওয়ার ফলে বুকে দুধ উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। এই ফলের ভিতরে থাকে ছোট্ট ছোট্ট কোষ। প্রতি কোষের ভিতরে থাকে ছোট্ট ছোট্ট বীজ।

ডায়াবেটিসে উপকারী:

নামটা SugarApple শুনে ঘাবড়ে যাবেন না। আতা ফল বা সুগার আপেলে ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে সেই সাথে রয়েছে ফাইবার। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য আতাফল খুব উপকারী।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ:

গর্ভাবস্থায় রক্তচাপ ওঠানামা করতে থাকে। বাচ্চার ওজন বেড়ে যাবার সাথে সাথে অনেক মায়ের রক্তচাপ বেড়ে যায়। অনেক মায়ের রক্তচাপ এতো বেড়ে যাই যে, নির্ধারিত সময়ের আগে সিজার বা অপারেশন করে বাচ্চার ডেলিভারি করানো হয়। এখন কিছুটা কমলেও আগে রক্তচাপ বেড়ে অনেক প্রসূতি মায়ের মৃত্যু হয়েছে। এতে থাকা পটাসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি:

ডায়েটরি ফাইবার হজমতন্ত্রের স্বাস্থ্য বজায় রাখে এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের উপশম করে, মলকে নরম করে এবং অন্ত্রের গতিবেগকে উন্নত করে। ডায়েটরি ফাইবার ডায়রিয়াও কমায়।

স্ট্রেস হ্রাস:

ভিটামিন বঁ ৬ রয়েছে আতা বা শরিফা বা সীতা ফলে।  এছাড়া ম্যাগনেসিয়াম পেশীগুলি শিথিল করে এবং কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমকে নিয়ন্ত্রণ করে। এটি স্ট্রেস হ্রাস করে এবং হৃদয়কে সুরক্ষা দেয়।

ভ্রূণের বিকাশ উন্নত করা:

সামগ্রিক পুষ্টির উপাদানগুলি ভ্রূণের ত্বক, টেন্ডার এবং রক্তনালীগুলির বিকাশে সহায়তা করে।

অকাল প্রসব প্রতিরোধ:

কপার বা তামা গর্ভবতী মহিলার জন্য প্রয়োজনীয়, কারণ তাদের ভ্রূণের সুরক্ষার জন্য কপারের ১০০ মিলি ডোজ প্রয়োজন। আতা এই তামার পরিমাণের একটি নির্দিষ্ট অংশ সরবরাহ করে। গর্ভপাতের ঝুঁকি হ্রাস করার পাশাপাশি এটি অকাল প্রসবের সম্ভাবনাও হ্রাস করে।

স্বাস্থ্যকর ওজন বৃদ্ধি:

ফলটিতে ক্যালোরি এবং নিউরাল সুগার বেশি থাকে। সুতরাং এটি ওজন বাড়াতে সহায়তা করবে। ফলের মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা শরীরের বিষাক্ত পদার্থকে পরিষ্কার করে, তাই কিডনিগুলি সর্বোত্তম অবস্থায় রাখে। এই অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলি শক্তিশালী ইমিউন সিস্টেম তৈরি করতে সহায়তা করে।

 দাঁতের সমস্যা থেকে মুক্তি:

আতায় থাকা ফাইবারের উপাদানগুলি দাঁতকে ঝকঝকে সাদা করে, মাড়ির সমস্যা নিরাময় করে এবং দুর্গন্ধ দূর করে।

সতর্কতা:

যা কিছু খাবেন পরিমাণমতো খাবেন। আপনার শরীরের অবস্থা বুঝে খাবেন। অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়।
আতায় যেহেতু চিনির পরিমাণ বেশি, তাই গর্ভকালীন ডায়াবেটিস রোগীদের এটি সেবন করা উচিত নয়। (বা এটি সংযমে খাওয়া উচিত)।
অতিরিক্ত ওজনযুক্ত মহিলাদের এই ফলটি খাওয়া এড়ানো উচিত (পুরোপুরি এড়াতে হবে না সংযতভাবে গ্রহণ করা যেতে পারে)।

সূত্রঃ

https://www.pinkvilla.com/lifestyle/food-travel/custard-apple-pregnant-women-10-amazing-health-benefits-during-pregnancy-450592

https://parenting.firstcry.com/articles/custard-apple-sitafal-during-pregnancy-benefits-and-side-effects/

Share