মানুষের শরীরে তিল বা আঁচিল হয় কেন?

এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যায় না যার তিল নেই। প্রতিটি মানুষের কোথাও না কোথাও তিলি আছে। সেটা হোক একটি, বা দুটি অথবা অসংখ্য। তিল ত্বকের কোনও রোগ নয়।

বলা যায় যে ত্বকের কোষের গঠনে সমস্যার সাথে এর সম্পর্কে আছে। কিন্তু সেটাও এমন কিছু ক্ষতিকারক নয় যে, ডাক্তার দেখাতে হবে। তিল বা আঁচিল শরীরের কোনও ক্ষতি করে না বরং খুব স্বাভাবিক একটি ঘটনা। তাই অযথা এদের নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারন নেই।

শরীর থেকে এদের বাদ দেওয়ার চিন্তা না করাই ভালো তাতে ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে। স্বাভাবিক নিয়মে তিল বা আঁচিল সাধারণত মিলিয়ে যায় না।

তিল বা আঁচিল কেন হয়?:

আমাদের দেহের ত্বকের উপরিভাগ সাধারণত মসৃণ হয়ে থাকে। অনেক সময় এই মসৃণ অংশের উপর অতিরিক্ত উপবৃদ্ধি সৃষ্টি হয় একে আঁচিল বলে। অতিরিক্ত মেলানিন ত্বকের রঙের উপর অস্বাভাবিক দাগ সৃষ্টি করে তাকে তিল বলে।

ত্বকে যে সব কোষ থাকে তার মধ্যে অন্যতম হলো মেলানোসাইট কোষ।

আমাদের গায়ের রং নির্ভর করে এই মেলানোসাইট-এর উপরে। এই কোষ রঞ্জক পদার্থ মেলানিন তৈরি করে ত্বকের স্বাভাবিক বর্ন প্রদান করে।

আমাদের ত্বকে মেলানোসাইট সর্বত্র সুষম ভাবে বণ্টিত। কিন্তু যদি কোনো কারনে অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজন হয় তার ফলে ত্বকের কোনো অংশে একত্রিত ভাবে একগুচ্ছ মেলানোসাইটের জন্ম হয়। এই একগুচ্ছ মেলানোসাইটের জন্মের কারনে তিল বা আঁচিলের সৃষ্টি হয়।