দুই অন্ধ ভিক্ষুকের গল্প।

এক গ্রামে দুই অন্ধ ভিক্ষুক বাস করত। দুজনই একটু বোকা প্রকৃতির ছিল। গ্রামে ভিক্ষা করে তারা খুব একটা আয় করতে পারত না। তো তারা ভাবল প্রতিদিন সকালে ভিক্ষা করতে শহরে যাবে আর রাতে গ্রামে ফিরে আসবে।

তো পরের দিন সকালে তারা শহরে চলে গেল। সারা দিনে তাদের ভালোই আয় হল। দেখতে দেখতে দিন গড়িয়ে রাত হল। রাতের অন্ধকারে বাড়ি ফেরা নিয়ে এক অন্ধ অনেক চিন্তিত হয়ে পড়ল। তখন অন্য অন্ধ তাকে বলল “ভয় নেই আমি তোমাকে পথ দেখিয়ে নিয়ে যাব।” এই বলে সে তার ঝুলি থেকে পুরোনো একটা টর্চ বের করে দুজনে হাতরে হাতরে পথ চলতে লাগলো।

এভাবে কিছুদূর যাবার পর দুজনেই ময়লা পানি ভর্তি একটা গভীর ডোবায় গিয়ে পড়লো। তারা দুজনই সাতার জানত না। ডোবার ময়লা পানির স্বাদ মুখে টের পাওয়ায় এক অন্ধ অন্যকে বলল “পানির স্বাদ এমন নোনতা কেন? আমি নিশ্চিত আমরা সমুদ্রে এসে পড়েছি। মনে হয় বাঁচার আর সুযোগ নেই “। এই কথা বলে তারা আরো জোড়ে হাত পা ছুড়তে লাগল এবং অল্পসময়ে ক্লান্ত হয়ে ওই ডোবায় ডুবেই মরল।

উপদেশ:সৃজনশীল চিন্তার মাধ্যমে যেকোন সমস্যা সমাধান করা যায়।

Share