এক বোকা কাক ও শেয়ালের গল্প।

একদিন এক ক্ষুধার্ত কাক খাবার খোঁজ করছিল। কোথাও কিছু না পেয়ে ক্লান্ত হয়ে সে একটা ডুমুরগাছে এসে বসল। কাকটি ডুমুর গাছে অনেক ডুমুর দেখতে পেল।
ডুমুরগুলো দেখে খুশি হয়ে কাক ভাবল, আ-কত ফল। দেখতে কি সুন্দর খেতেও নিশ্চয়ই সুস্বাদু। ভালই হল, পেট ভরে ডুমুর খাওয়া যাবে। তখন সে একটা ডুমুর ছিরে খেতে গিয়ে দেখল ডুমুরগুলো এখনও ভালভাবে পাঁকে নি। আর একটু নরম না হলে খাওয়া যাবে না। কাক ভাবল কিছুক্ষণ অপেক্ষা করলেই হয়তো এগুলো পেঁকে যাবে। এই ভেবে পাকার আশায় সে ডুমুর গাছে চোখ বুজে বসে রইল। আর কোথাও খাবারের খোজে গেল না।

সেই সময় গাছের নিচ দিয়ে যাচ্ছিল এক শেয়াল। কাককে গাছের ওপর চোখ বুজে বসে থাকতে দেখে শেয়ালের কেমন সন্দেহ হল। সে কাককে ডেকে বলল, বলি ও ভাই কাক, তুমি ওখানে চুপচাপ বসে কি করছ? ব্যাপার কি? কাক বলল, ভাই, ডুমুর খাবার আশায় বসে রয়েছি। একটু পরেই ডুমুরগুলো পাঁকবে, তখন পেট ভরে খাব। কাকের কথা শুনে শেয়াল হেসে বলল, তুমি দেখছি খুবেই বোকা। গাছের ডুমুর পাঁকবে, সেই পাঁকা ডুমুর খেয়ে তুমি খিদে মেটাবে, এই আশায় তুমি এখন থেকেই বসে রয়েছ। বলি ভায়া তোমার এই আশা কি পূরণ হবে?

শিক্ষণীয়: ভবিষ্যতে সুখের আশা করে যারা বর্তমানে নিষ্কর্মা হয়ে বসে থাকে শেষ পর্যন্ত তাদের নিরাশাই হতে হয়।

Share