মা হাঁস ও একটি শিয়ালের গল্প।

এক লোকের একটি হাঁস ছিল। হাঁসটি ছিল মা হাঁস। সেই মা হাঁস টির দুটি বাচ্চা ছিল। মা হাঁসটি প্রতিদিন তাঁর বাচ্চা দুটোকে নিয়ে ঘুরে বেড়াত খাবার খেত খেলা করতো। আর সন্ধ্যা হলেই বাচ্চাদের নিয়ে বাসায় ফিরে আসতো। এইভাবে তাদের দিন ভালো ভাবে কেটে যাচ্ছিল।

প্রতিদিনের মতো সেদিন সন্ধ্যায় মা হাঁসটি তার বাচ্চাদের নিয়ে বাসায় ফিরে এসেছিলো। হটাৎ সেদিন রাতে একটি শেয়াল এসে আসে মা হাঁসকে বলল আমি তোর বাচ্চা দুটিকে খাবো। তোর বাচ্চাকে আমায় দিয়ে দে। শিয়ালের এই কথা শুনে মা মা হাঁসটি ভয় পেয়ে গেল কিন্তু বুদ্ধি করে খুব জোরে ডাকা ডাকি শুরু করে দিল। প্যাক প্যাক প্যাক প্যাক প্যাক… প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক … প্যাক প্যাক প্যাক …

হাঁসটির মালিক হাঁসটির ডাকা ডাকি শুনে বুজতে পারলো বোধয় হাঁসটি মনেহয় বিপদে পড়েছে। সে একটি লাঠি নিয়ে হাঁসটির সাহায্যের জন্য এগিয়ে গেলো। লাঠি হাতে লোকটিকে দেখে শিয়ালটি প্রাণ নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে গেলো।

হাঁসটি এবং হাঁসের বাচ্চা দুটি বিপদ থেকে বাঁচলো এবং খুশি মনে ঘুমিয়ে পড়লো।

Share