অপারেশনের পর টক জাতীয় ফল খেলে কি ইনফেকশন হয়?

টক জাতীয় ফল নিয়ে নেতিবাচক কথার শেষ নেই। টক খেলে গলা ভাঙে, রক্ত পানি হয়ে যায়, বুদ্ধি কমে। আসলে এ ধারণাগুলো মোটেই ঠিক নয়। অনেক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এই ধরনের ধারণা সম্পূর্ণ ভুল বলে প্রমাণ করেছেন।

এক সময় সাধারণের মধ্যে ধারণা ছিল, অতিরিক্ত টক খাওয়ার কারণে বুদ্ধি কমে।

আমাদের দেশের অধিকাংশ লোকই মনে করে, টক জাতীয় ফল খেলে ঘা পেকে যায়।  অপারেশনের পরে অনেকে রোগী দেখা যায় যে টকজাতীয় ফল খেতে চান না। তাঁরা মনে করেন, টকজাতীয় ফল খেলে ক্ষতস্থান শুকাতে দেরি হবে এবং ওখানে ইনফেকশন হতে পারে। এ ধারণা সম্পূর্ণ ভুল।

টকজাতীয় ফল ভিটামিন সি সমৃদ্ধ:

টকজাতীয় ফলে ভিটামিন সি এবং অন্যান্য বিভিন্ন ভিটামিন ও মিনারেলস প্রচুর থাকে, যা ক্ষত সারাতে সহায়তা করে। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলের মধ্যে রয়েছে কাগজিলেবু, কমলালেবু, আমলকি, কামরাঙ্গা, জাম্বুরা ইত্যাদি। অপারেশনের পর ভিটামিন সি খুবই প্রয়োজন।

টকজাতীয় ফল ঘা শুকাতে সাহায্য করে:

ভিটামিন সি সংযোজক কলার কোলাজেন তৈরিতে সাহায্য করে। ভিটামিন কোলাজেনে অবস্থিত প্রোলিনের সঙ্গে পানির সংযোজন ঘটিয়ে হাইড্রোক্সিপ্রোলিন তৈরি করে। এভাবেই কোলাজেনের উৎপাদন সহজ করে কাটা বা ক্ষতস্থানকে মাংসপেশির তন্তুতে ভরাট করে ফেলে এবং ঘা শুকিয়ে যায়। তাই টক জাতীয় ফল খেলে ঘা পাকে না। বরং এটি ঘা শুকাতে বিশেষভাবে সাহায্য করে।

অপারেশনের পর রোগীরা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ টক জাতীয় ফল খেতে চান না। কিন্তু ভিটামিন সি ট্যাবলেট দিলে কিন্তু ঠিকই খান। সুতরাং ভুল ধারণার বশবর্তী হয়ে অপারেশনের পর ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার থেকে নিজেকে বঞ্চিত করে দ্রুত সেরে ওঠার প্রক্রিয়াকে ধীর করার কোনো মানে হয় না।

তাই অপারেশনের পরে আমাদের টক জাতীয় ফল খাওয়া উচিৎ। অপারেশনের পর টকজাতীয় ফল খেলে কোনো ইনফেকশন হয় না।

Share