রূপচর্চায় টমেটোর ব্যবহার ও উপকারিতা।

টমেটো সুস্বাদু ও একটি পুষ্টিকর সবজি। টমেটো শীতকালীন সবজি হলেও এখন সারা বছর পাওয়া যায়। কাঁচা কিংবা পাকা দুভাবে টমেটো খাওয়া যায়। খাবারের স্বাদ বাড়াতে এবং স্বাস্থ্য উপকারিতায় টমেটোর জুড়ি মেলা ভার। টমেটো স্বাস্থ্য উপকারিতার পাশাপাশি এটি রূপচর্চাও অধিক জনপ্রিয়।

প্রতিদিনের ত্বক পরিচর্যায় টমেটো ব্যবহারের রয়েছে নানা উপকারী দিক। ত্বকের পরিষ্কার করতে টমেটো প্রিয় এবং সবচেয়ে কার্যকর প্রতিকার। এটা কেবল ত্বক উজ্জ্বলই রাখেনা পাশাপাশি ত্বক সুস্থ, সুন্দর ও মসৃণ রাখতেও সাহায্য করে।

টমেটোতে উচ্চ পরিমানে পটাসিয়াম এবং ভিটামিন “সি” রয়েছে যা ত্বকে ভিতর থেকে উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত করে তোলে। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক, রূপচর্চায় টমেটোর নানাবিধ ব্যবহার সম্পর্কে-

ত্বকের তৈলাক্ততা দূর করে:

যদি আপনার ত্বকের তৈলাক্ত ভাব চিন্তিত থাকেন এবং ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে চান তাহলে টমেটো বেছে নিন। টমেটো ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সাহায্য করবে।

একটা ফ্রেস টমেটো পেস্ট করে নিয়ে এর সাথে শসার রস যোগ করুন। তুলায় করে মুখে মাখুন এটা আপনার ত্বকের তেল কন্ট্রোল করবে।

রোদে পোড়া দাগ দূর করে:

গরম কাল আসলেই রোদে পোড়া ত্বক একটি কমন সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। যা কিছু লাগিয়েই বাইরে যাই না কেন সূর্যের সরাসরি আলো পড়লে ত্বক পুড়বেই। একটি টমেটো পেস্ট নিন সাথে ১ চামচ মধু নিয়ে মুখসহ যেসব স্থান রোদে উন্মুক্ত থাকে সেখানে মাখুন।

১৫ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বকে সূর্যের শক্তিশালী ইউভি রশ্মির হাত থেকে বাঁচাবে।

মৃত কোষ দূর করে:

টমেটোতে থাকা এনজাইম ত্বক এক্সফলিয়েট করে মৃতকোষ এবং ব্ল্যাক হেডস দূর করে। যাদের ত্বক সংবেদনশীল তাদের ত্বক এক্সফলিয়েট করতে এবং মসৃণভাব বজায় রাখতে সহায়তা করে টমেটো।

টমেটো ও চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে সারা শরীরের জন্য স্ক্রাব তৈরি করে ব্যবহার করুন। এতে শরীরের মৃত কোষ দূর হয়ে যাবে। মুখে ব্যবহার করতে চাইলে কেবল টমেটোর ভেতরের অংশই ব্যবহার করতে পারেন।

ব্রণের সমস্যা দূর করে:

লোমকূপ বড় হয়ে গেলে ত্বকে সহজেই ময়লা ও জীবাণু প্রবেশ করে। আর এর থেকে ব্রণসহ নানা সমস্যা দেখা দেয়। এক টেবিল চামচ টমেটোর রস নিন, সাথে ২/৪ ফোটা লেবুর রস নিন। এবার তুলোতে করে মুখে সার্কুলার মোশন-এ ম্যাসাজ করুন।

১৫ মিনিট পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক লোমকূপ সঙ্কুচিত করতে সাহায্য করবে।

ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করে:

ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করতে টমেটোর ব্যবহার হয়ে আসছে বহুদিন ধরে। টমেটোতে থাকা ভিটামিন “সি” এবং “ই” এবং বিটা ক্যারোটিন প্রাকৃতিক ত্বকে স্বাস্থ্যকর, উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত রাখতে সাহায্য করে।

১ টেবিল চামচ টমেটোর রস, ১ টেবিল চামচ কমলালেবুর রস ও ১ টেবিল চামচ শসার রস দিয়ে তৈরি করুন একটি মিশ্রণ। মুখের ত্বক ভালো করে পরিস্কার করে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে এভাবে ২-৩ বার ব্যবহারে ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত।

টমেটো চিনি স্ক্রাব:

খোসা সমেত দুটো লেবুর সঙ্গে বরফ মিশিয়ে মিক্সারে ব্লেন্ড করুন, কুড়িটা মিন্ট পাতা, দুটো টমেটো যোগ করুন। এবার মিশ্রণে পাঁচ টেবিল চামচ চিনি যোগ করুন। এই মিশ্রণটা স্ক্রাবার হিসাবে সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার করুন।

তারুণ্য ধরে রাখে:

চেহারাতে তারুণ্য ধরে রাখতে সহায়তা করে টমেটো। সালাদের জন্য কাটা টমেটো থেকে দুই ফালি টমেটো মুখে ঘষুণ। এর জন্য প্রথমে সাবান দিয়ে মুখ ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন।

এরপর ফালি করা টমেটো ১০ মিনিট মুখে ঘষে ১৫ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফল পেতে নিয়মিত এটি ব্যবহার করুন।

দাগমুক্ত ত্বকের জন্য:

টমেটো দাগমুক্ত ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। এছাড়া রোদে পোড়া দাগ ও রোদের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ত্বকের জন্য সবচাইতে বেশি কার্যকরী টমেটো। একটি গোটা টমেটো দুভাগ করে কেটে নিয়ে মুখে গলায় ও হাতে ঘষে নিন ভালো করে।

তারপর ১০-১৫ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ১০-১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিনের ব্যবহারে দাগ দূর করার পাশাপাশি ত্বককে আরও উজ্জ্বল করবে।

রেফারেন্স:

Share