প্রেম মানে কী? আমরা প্রেম এ পড়ি কেন?

প্রেম মানে কী?

প্রেম মানে কারোও অনুউপস্থিতিতে তাকে অনুভব করা। প্রেম মানে চোখের সামনে না থাকলেও মনের চোখ দিয়ে তাকে দেখতে পারা।। প্রেম মানে কারোও হাতে হাত রেখে বলা তোমায় ছেড়ে যাবো না কখনও। প্রেম মানেই কাউকে সারা জীবনের জন্য পাশে চাওয়া। প্রেম শব্দ টিই এমন যে, এটাকে ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। প্রেম মানে কারোও জন্য বুকটা ধরফর করা। প্রেম মানে কারোও জন্য নতুন করে বাঁচতে শেখা।

প্রেম মানে তুমি যাকে ভালোবাসো তার জীবনের সুখ দুঃখের ভাগিদার হওয়া। প্রেম মানে একে অপরের প্রতি বিশ্বাস রাখা। প্রেম মানে কারোও পছন্দ অপছন্দ সম্পর্কে জানা। প্রেম মানে তুমি যাকে ভালোবাসো তাকে দেখে খুশিতে আত্মহারা হয়ে যাওয়া। প্রেম মানে মান অপমান বোধ হারিয়ে ফেলা। প্রেম মানে তুমি যাকে ভালোবাসো সে তোমার সামনে এসে দাঁড়ালে পুরো পৃথিবীটাকে ভুলে যাওয়া। প্রেম মানে কারো জন্য অপেক্ষা করা। প্রেম মানে ভরসা করা যে, সে সুখে দুঃখে পাশে থাকবো সারা জীবন। প্রেম মানে বসন্তের হাওয়া যেটা মাঝে মাঝে তোমার মনে উঁকি দিয়ে যাবে। প্রেম মানে ভালোবাসার বিশাল আকাশ।

প্রেম মানে কী নয়?

  • প্রেম মানে জীবন দেওয়া নয় বরং বাঁচতে শেখানো।
  • প্রেম মানে বাবা মাকে ছেড়ে কারোও হাত ধরে পালিয়ে যাওয়া নয়। কারণ মনে রাখবে তারা ও তোমার জন্য সব কিছু করতে পারে।

আমরা প্রেম এ পড়ি কেন?

যুক্তরাষ্ট্রের নৃতত্ববিদ হেলেন ফিশার ও তার দল ভালোবাসায় সুখী মানুষদের উপর একটি গবেষণা করেন। হেলেন ফিশারের মতে, প্রেমের কারণের পেছনে গবেষকরা মস্তিষ্কের ভেনট্রাল টেগমেন্টাল এরিয়া (vta)-এর A10 নামের কোষকে খুঁজে পেয়েছেন। A10 কোষ ডোপামিন তৈরিতে ভূমিকা রাখে। এই vta মস্তিষ্কের রিওয়ার্ড সিস্টেমের অংশ। এটি চাওয়া, প্রেরণা, ক্ষুধা, উত্তেজনা, ভালোবাসার আবেগ ইত্যাদির সঙ্গে সম্পর্কিত।

আসলে প্রেম মস্তিষ্কের সেই অঞ্চল যেখানে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিলে আসক্তির অনুভূতি হয়। প্রেমের প্রাথমিক পর্যায়েও এক ধরনের নেশা তৈরি হয়। হয়তো এই কারণে রোমান্টিকতা মাদকের মতো আসক্তি তৈরি করে। তবে কারো প্রতি আসক্ত হওয়ার আগে মস্তিষ্ক ব্যক্তিটিকে বিচার- বিশ্লেষণ করে নেয়।

যে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কারণে আমরা প্রেমে পড়ি:

যুক্তরাষ্ট্রের অধ্যাপক ফিশার ও তাঁর গবেষক দল প্রেমকে মোটাদাগে তিনটি ভাগে ভাগ করেন। ভাগগুলো হলো :

  • কাম
  • আকর্ষণ
  • এবং আসক্তি

এগুলো নিয়ন্ত্রিত হয় হরমোনের মাধ্যমে। এই তিনটি আবেগ একসঙ্গেও তৈরি হতে পারে, আবার আলাদা আলাদাও হতে পারে। তাই হয়তো মানুষ ভিন্ন ভিন্ন মানুষের প্রতি আকর্ষণ অনুভব করে।

Share