পালং শাক হাড়ের ক্ষয়রোধ করে হাড়কে মজবুত রাখে। জেনে নিন পালং শাকের আরও উপকারীতা ।

প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় মাছ, মাংসের পাশাপাশি শাক কিংবা তরকারি থাকবে না তা কি হয়। আমাদের খাদ্য তালিকায় যে সব শাক থাকে তার মধ্যে পালং শাক অন্যতম। এটি খুবই সুস্বাদু একটি শাক। এই শীতকালীন শাকটি সাধারণত ভাজি কিংবা ঝোলে দিয়ে খেয়ে থাকি। নানা রকম অসুখ – বিসুখ থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে পালং শাক।

এই সবুজ শাকটিতে রয়েছে ভিটামিন এ (বিটা -ক্যারোটিন), ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, ভিটামিন ই, ফাইবার, আয়রণ, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ এবং জিংক। এছাড়াও এতে রয়েছে প্রচুর এন্টি-অক্সিডেন্ট।

পুষ্টিগুণ

পালং শাক পুষ্টি গুনে সমৃদ্ধ। নিচে কয়েকটি গুরত্বপূর্ন পুষ্টি উপাদান দেওয়া হল –

  • শর্করা: ৩.৬ গ্রাম
  • ফাইবার: ২.২ গ্রাম
  • প্রোটিন: ২.৯গ্রাম
  • ভিটামিন এ(বিটা-ক্যারোটিন): ৫২% (%DV)
  • ভিটামিন সি: ৩৪% (%DV)
  • ভিটামিন ই: ১৩% (%DV)
  • আয়রণ: ২১% (%DV)
  • ক্যালসিয়াম: ১০% (%DV)
  • ম্যাগনেশিয়াম: ২২% (%DV)
  • ভিটামিন কে: ৪৬০% (%DV)

পালং শাকের উপকারীতা

  • পালং শাকে থাকা বিটা ক্যারোটিন (ভিটামিন এ)আমাদের চোখের জন্য খুব ভালো। উচ্চ মাত্রার বিটা ক্যারোটিন চোখের ছানি পড়ার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। রেটিনার ক্ষমতা বাড়ানোর মধ্যে দিয়ে দৃষ্টিশক্তির উন্নতিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।
  • পালং শাকে আছে উচ্চ মাত্রার ম্যাগনেসিয়াম, যা রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।
  • পালং শাকে উচ্চ পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইবার এবং অন্যান্য যৌগ রয়েছে যা মানুষের ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিকে দমন করতে পারে। প্রোস্টেট ক্যান্সার ও ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে খুবই কার্যকর।
  • যেহেতু পালং শাকে উচ্চ মাত্রায় ভিটামিন আছে, তাই এটি আমাদের হাড়কে শক্ত ও মজবুত করতে সাহায্য করে।
  • পালং শাকে উচ্চ পরিমাণে নাইট্র্রেট রয়েছে, যা রক্তচাপের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। এছাড়া ফলিক এসিড থাকায় পালং শাক হার্ট এর সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।
  • পালং শাকে ২১% আইরন রয়েছে। যা আমাদের চুল পড়ার মাত্রা কমানোর পাশাপাশি দেহের ভেতরে লোহিত রক্ত কণিকার ঘাটতি দূর করতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।
  • পালং শাক স্মৃতিশক্তি এবং মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে খুবই কার্যকর।
  • পালং শাকে থাকা আয়রণ রক্ত স্বল্পতা দূর করতে সাহায্য করে।
  • পালং শাকে থাকা ভিটামিন সি ও ক্যালসিয়াম দাঁত ও হাড়ের ক্ষয়রোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। এছাড়া এটা সূর্যের অতি বেগুলি রশ্নি থেকে আমাদের ত্বককে রক্ষা করে।
  • হজম শক্তি বাড়ায় ও কোষ্টকাঠিন্যতা দূর করতে সাহায্য করে।
  • যে কোনো সবুজ শাক বা সবজি আপনার স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় সবুজ শাক বা সবজি রাখুন।

    Share