করোনাভাইরাসে কাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সব থেকে বেশি?

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির অনেক ক্ষেত্রে লক্ষণ দেখা যায় না। যখন করোনাভাইরাস লক্ষণগুলি সৃষ্টি করে, তখন সাধারনত অল্প তাপমাত্রার জ্বর, শরীরে ব্যথা, কাশি, নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, সর্দি এবং গলা ব্যথা অন্তর্ভুক্ত।

তবে করোনাভাইরাস কখনও কখনও উচ্চ জ্বর, তীব্র কাশি এবং শ্বাসকষ্টের মতো গুরুতর লক্ষণগুলির কারণ হতে পারে যা প্রায়শই নিউমোনিয়ার লক্ষণগুলি সাথে মিল থাকে।

কাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি?

বয়স্ক ব্যক্তিরা, বিশেষত দীর্ঘস্থায়ী ব্রঙ্কাইটিস, এম্ফিসেমা, হার্ট ফেইলিওর বা ডায়াবেটিসের মতো রোগ আছে এমন ব্যক্তিদের করোনাভাইরাসে সংক্রামিত হয়ে গুরুতর অসুস্থ্য হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

এছাড়াও, কোন ব্যক্তির বয়স যাই হোক না কেন যদি নিম্নলিখিত শারীরিক সমস্যা থেকে থাকে তাহলে তাদেরও কোন ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি:

  • দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগ
  • লিভার সিরোসিস এবং ক্রনিক হেপাটাইটিস সহ দীর্ঘস্থায়ী লিভারের রোগ
  • রক্তের ডিজঅর্ডার যেমন সিকেল সেল ডিজিজ (sickle cell disease) বা যারা রক্ত ​​পাতলা হওয়া ঔষুধ খায়
  • ক্যান্সার বা ক্যান্সারের চিকিৎসা নিচ্ছে এমন
  • অঙ্গ বা অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন (bone marrow transplant)
  • ইমিউনোসপ্রেসেন্ট (immunosuppressant) ধরনের ওষুধ খাওয়া
  • এইচআইভি বা এইডসে (HIV or AIDS) আক্রান্ত
  • গত দুই সপ্তাহের মধ্যে বা সাম্প্রতিক গর্ভাবস্থা
  • ডায়াবেটিস
  • উত্তরাধিকারসূত্রে পেটের অসুখ এবং মাইটোকন্ড্রিয়াল অসুখ
  • করোনারি আর্টারি ডিজিজ, জন্মগত হার্ট ডিজিজ এবং হার্ট ফেইলিওর সহ হৃদরোগ
  • হাঁপানি, সিওপিডি (দীর্ঘস্থায়ী ব্রঙ্কাইটিস বা এম্ফিসেমা) সহ ফুসফুসের রোগ
  • নিউরোলজিকাল এবং নিউরোলজিক এবং নিউরো ডেভেলপমেন্ট অবস্থা যেমন সেরিব্রাল প্যালসী, মৃগী রোগ, স্ট্রোক।

বাচ্চাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কেমন?

অল্প বয়সী শিশুরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে। তবে, শিশুদের হালকা লক্ষণগুলি দেখা যায় যেমন জ্বর, সর্দি এবং কাশি। কিছু বাচ্চাদের গুরুতর লক্ষণগুলি দেখা দেয়, তবে এটি খুব কম। বাচ্চাদের উপরে উল্লেখিত শারীরিক সমস্যা থাকলে গুরুতর অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়তে পারে।

সূত্র:
করোনাভাইরাস হার্ভার্ড রিসার্চ সেন্টার

Share