একাকীত্বকে দূরে রেখে জীবনে সফল হবেন কিভাবে? একাকীত্বতা দূর করার উপায়।

পৃথিবীতে আমাদের আগমন ঘটে একা আবার একটা সময় পরে একাই বিদায় নিতে হয়। জীবনে চলার পথে অনেক সময় আসে যখন নিজেকে খুব একা মনে হয়। চারপাশে চাকচিক্যময় জীবন ও অনেক সম্পদের মধ্যেও নিজেকে একা মনে হয়। মনে হয় আমার কষ্ট গুলো শেয়ার করার মতো কেউ নেই। একা বা একাকীত্ব অনেক সময় জীবনে চলার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। জীবনের অনেক সম্ভাবনা, একাকীত্ব নষ্ট করে দেয়। সামান্য সচেতনতা একাকিত্বতার বেড়াজাল থেকে আমাদের মুক্ত করতে পারে। নিচে একাকীত্বতা দূর করার উপায় দেওয়া হলো-

কি কারণে একাকীত্ব লাগে খুঁজে বের করুন:

কিছুটা সময় নিয়ে একটু চিন্তা করুন আসলে কি কারণে নিজেকে একাএকা লাগে। উত্তর পেয়েছেন! যাইহোক ধরুন আপনি যখন একাএকা কোনো কারণে মন খারাপ করে বসে থাকেন তখন নিজেকে খুব একাএকা লাগে। এক্ষেত্রে আপনি গান শুনতে পারে, টিভি দেখতে পারেন, বাচ্চাদের মজার মজার ভিডিও দেখতে পারেন বা নতুন কিছু করতে পারে।

বই পড়ার অভ্যাস:

আমরা ছোট বেলা থেকে শুনে আসছি ও পরে আসছি বই আমাদের পরম বন্ধু। পৃথিবীর সবাই আপনাকে একা করে দিলেও এই পরম বন্ধুটি আপনাকে কখনও একা করে দেবে না। বই পড়ার অভ্যাস পৃথিবীর সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ অভ্যাস গুলোর মধ্যে একটি। তাই যখন নিজেকে একাএকা লাগবে বা একা বসে আছে চেষ্টা করুন বই পড়ার। এটা আপনার একাকীত্বতা থেকে বের হয়ে আসতে আপনাকে সহায়তা করবে।

ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবুন:

যখন একাএকা বসে থাকেন তখন খারাপ চিন্তা ভাবনা যেমন-বিপদে কাকে পাশে পাব? বিপদে পড়লে কার কাছে যাব কি করবো ইত্যাদি। এসব অমূলক চিন্তা বাদ দিয়ে আপনার ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা করুন। আপনি নিজের অজান্তেই আপনার একাকীত্ব থেকে বের হয়ে আসবেন। নিজেকে আর একা মনে হবে না। তাই নিজের একাকীত্ব দূর করতে নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা করুন। কিভাবে সৎপথে থেকে একজন সফল মানুষ হওয়া যায়। তখন আপনার একাকীত্বের যন্ত্রণাকে আর যন্ত্রণা মনে হবে না।

সময় পেলেই ঘুরতে চলে যান:

সুযোগ পেলেই ঘুরতে চলে যান। পাহাড়, সমুদ্র, মুক্ত পাখির মতো খোলা আকাশের নিচে, অরণ্যের মাঝে যেখানে যেখানে যেতে মন চাই ঘুরতে চলে যান। মাঝে মাঝে মুক্ত আকাশের নিচে দাঁড়িয়ে জোরে জোরে হাসুন। আর চিৎকার করে বলুন আমি বাঁধাহীন এক মুক্ত পাখি। তখন একাকী জীবনের যন্ত্রনা একটু হলেও কমবে।

নিজেকে ভালোবাসুন:

এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। নিজেকে ভালোবাসুন, নিজের পছন্দকে গুরত্ব দিন। আপনি যদি নিজেকে ভালবাসতে শেখেন তাহলে নিজেকে সম্পূর্ণ একজন হিসেবে দেখতে পারবেন।

বাস্তবতাকে উপলদ্ধি করুন:

পর নির্ভরশীলতা কমিয়ে বাস্তবতাকে উপলদ্ধি করে নিজেকে প্রস্তুত করুন। একাকীত্বতা কে বাস্তব হিসাবে মেনে নিয়ে সামনে এগিয়ে চলুন।

নতুন কিছু তৈরি করুন:

যখন একা বসে আছেন নিজেকে খুব একা লাগছে ভাবছেন কীভাবে একাকীত্বতা দূর করবেন। বিরক্ত হওয়া একাকী বোধ করার পূর্বশর্ত সবসময় নিজেকে ব্যস্ত রাখা। তাই সবসময় সুযোগ পেলেই চেষ্টা করুন নতুন কিছু তৈরি করার।

একাকীত্বতাকে নেতিবাচক ভাবে না নিয়ে এটিকে সুবিধা বলে মেনে নিন। আমি একা এই ভাবনা ভুলে গিয়ে সব বাঁধা কাটিয়ে সমানের দিকে এগিয়ে যান। দেখবেন জীবনে চলার পথে অনেক সঙ্গী পাবেন। তখন আর নিজেকে একা মনে হবে না।

Share